মাস্ক না পরায় বিমান থেকে নামিয়ে দেওয়া হলো যাত্রীকে

Spread the love

সুরক্ষা নীতি মেনে মাস্ক ব্যবহারে অস্বীকৃতি জানানোয় আমেরিকান এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইট থেকে একজন যাত্রীকে নামিয়ে দেওয়া হয়। গত বুধবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে ব্র্যান্ডন স্ট্রাকা নামে ওই যাত্রী এ বিষয়ে পোস্ট করে ক্ষোভ ঝাড়েন।

নিউ ইয়র্কের লাগোয়ার্ডিয়া বিমানবন্দর থেকে তিনি টুইট করেন, ‘মাস্ক না পরায় আমাকে ফ্লাইট থেকে নামিয়ে দেওয়া হয়েছে। এবারই প্রথম এমন ঘটল। যদিও এটা আমেরিকান আইন নয়। আমেরিকান এয়ারলাইনসের কেবিন ক্রুরা দাবি করছিল এটাই আইন। যখন বুঝিয়ে দিলাম আইনে মাস্ক পরার বাধ্যবাধকতা নেই, তখনই আমাকে বিমান থেকে নামিয়ে দেওয়া হয়।’

স্ট্রাকা একসময়ের অভিনেতা ও হেয়ারস্টাইলিস্ট। ওইদিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক থেকে টেক্সাসের ডালাস যেতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু আমেরিকান এয়ারলাইনসের ফ্লাইট ১২৬৩ থেকে তাকে নামিয়ে দেওয়া হয়। কারণ তিনি মুখে মাস্ক ব্যবহার করতে চাননি।

আমেরিকান এয়ারলাইনস কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, যাত্রীদের জন্য মুখ ঢেকে রাখার প্রয়োজন না ফুরানো পর্যন্ত ব্র্যান্ডন স্ট্রাকাকে নিষিদ্ধ রাখা হবে।

স্ট্রাকার কথায়, ফ্লাইটে মাস্ক দিয়ে মুখ ঢেকে রাখার কোনো আইন আমেরিকায় নেই। যদি অসুস্থতার কারণে ফেস মাস্ক ব্যবহার অসুবিধার হয় তাহলে তাকে চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র দেখাতে বলেন কেবিন ক্রুরা। কিন্তু তিনি উল্টো বলেন, ‘মাস্ক পরে থাকা কঠিন!’

যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত সোমবার আমেরিকান এয়ারলাইনস যাত্রীদের মুখ ঢেকে রাখার নিয়ম ঘোষণা করে। এতে বলা হয়, কোনো যাত্রী মুখ ঢেকে রাখতে আপত্তি জানালে ফ্লাইটে নেওয়া হবে না এবং ভবিষ্যতে তার ভ্রমণ নিষিদ্ধ করা হতে পারে। শুধু অসুস্থ, শিশু ও খাবারের সময় মাস্ক ব্যবহারের প্রয়োজন নেই।

করোনাভাইরাস মহামারিতে ঝুঁকি কমাতে ফেস মাস্ক ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক করেছে বিশ্বের অনেক বিমান সংস্থা। আমেরিকায় যদিও এমন কোনো আইন হয়নি। তবে যুক্তরাষ্ট্রের সব এয়ারলাইনস মে মাসের মাঝামাঝি থেকে যাত্রী ও কেবিন ক্রুদের মাস্ক ব্যবহার করতে বলছে।

গত ২৪ এপ্রিল থেকে ইউনাইটেড এয়ারলাইনসের কর্মীরা মাস্ক ব্যবহার করছেন। এরপর ৪ মে থেকে যাত্রীদের ওপর একই নিয়ম আরোপ করে আমেরিকান সংস্থাটি। গত ১৮ জুন এক ঘোষণায় তারা জানায়, ফ্লাইটে মাস্ক ব্যবহার না করলে যেকোনও যাত্রীকে সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ করা হবে।

মাস্ক ব্যবহারের একই নীতি বেছে নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের আলাস্কা এয়ারলাইনস, হাওয়াইয়ান এয়ারলাইনস, জেটব্লু এয়ারওয়েজ, ডেল্টা এয়ার লাইনস ও সাউথওয়েস্ট এয়ারলাইনস।

Add Comment